18/11/2017

বিয়ের প্রথমরাতে নববধূর মনে কোন ৭ ভীতি তাড়া করে?

বিয়ের প্রথম রাত৷ প্রতিটি মানুষের জীবনেরই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷ প্রথম রাত তথা ফুলশয্যার রাত নিয়ে পুরুষের মাঝে যেমন কাজ করে প্রবল উত্তেজনা, নারীর মাঝে কাজ করে ঠিক তেমনি ভয়। শুধু ভয় বললে কম বলা হবে৷ ভয়-শঙ্কা-অস্বস্তি সব মিলিয়ে অনেকগুলো অনুভব কাজ করে প্রত্যেক নারীর মনে। ফুলশয্যার রাত নিয়ে নারীর ৭ ধরণের ভয় রয়েছে৷ জেনে নিন সেই সপ্ত ভীতির কথা৷

১) প্রথম যৌন মিলনের ভয়টা তো থাকেই
বিয়ের সঙ্গে জড়িয়ে আছে যৌন সম্পর্কের বিষয়টা। প্রেম করে বিয়ে হোক বা পারিবারিক, অবধারিতভাবেই বিয়ের রাতে এই বিষয়টি নিয়ে প্রবল ভয় কাজ করে নারীদের মাঝে। কেননা এখনও মেয়েরা সাধারণত বিয়ের আগে ভার্জিনই থাকেন। ফলে নিজের জীবনের প্রথম যৌন মিলনের ব্যাপারটি নিয়ে শঙ্কা হওয়াটাই স্বাভাবিক।

২) প্রথম আরেকজন মানুষের সঙ্গে নিরিবিলি জীবন
ঠিক আরেকজনও না, বর। এতদিন যাকে কেবল দূর থেকেই দেখেছেন, তার সঙ্গেই এখন কাটাতে হবে জীবন। একই কামরায় দু’জনে নিরিবিলি জীবন-যাপন করবে৷ একসঙ্গে কাটাবেন জীবনের বাকি রাতগুলো। কী হবে, কেমন হবে ইত্যাদি নিয়ে সব নারীই অনেক কিছু চিন্তা করে ফেলেন।

৩)কেমন দেখাচ্ছে আমাকে?
বিয়ের প্রথম রাত বলে কথা৷ প্রত্যেক নারীই চান এইদিন তাকে অপ্সরার মত দেখতে লাগুক। কেমন দেখাচ্ছে তাকে? বরের চোখে ভালো লাগছে কিনা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে শঙ্কায় ভোগেন প্রায় সব নারী।

৪) পরের দিন সকালটা কেমন হবে?
নতুন একটি মানুষের সঙ্গে শুরু হবে পরের দিনটি। লজ্জা, জড়তা, অস্বস্তি সবকিছু মিলিয়ে একটি নতুন জীবনের যাত্রা। নিজের চিরচেনা জীবনের প্রায় সবকিছুই মেয়েদের ফেলে আসতে হয় বাবার বাড়িতে, নিজের প্রায় সমস্ত অভ্যাসই বিয়ের পর বদলে ফেলতে হয়। পরের দিন সকালটি কেমন হবে? কোন কাজটি কীভাবে করবেন এগুলো নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগেন প্রায় সব নারীই।

৫) চারদিকে শুধু নতুন মানুষ
কেবল স্বামী তো নন৷ শ্বশুরবাড়িতে প্রায় সকলেই নতুন। সকলের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া৷ সকলের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করার পালা শুরু হয়ে যায় বিয়ের প্রথম রাতটি থেকেই। পরের দিন থেকেই একেবারে ভিন্ন একটি জীবনের যাত্রা শুরু। বিয়ের রাতে শ্বশুরবাড়ির প্রায় সবকিছুই নিয়েই ভাবতে থাকেন মেয়েরা।

৬) জন্মনিয়ন্ত্রণ
প্রেমের বিয়ে হোক বা পারিবারিক৷ যৌন অভিজ্ঞতা আগে থাকুক বা না থাকুক৷ কোন নারীই চান না বিয়ের প্রথম রাতেই গর্ভবতী হয়ে যেতে। কিন্তু প্রথম রাতেই বরের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলা অস্বস্তিকর। তাই বলাই বাহুল্য নার্ভাস হয়ে পড়েন নারীরা বিষয়টি নিয়ে।

৭) মা-বাবাকে মনে পড়ে সবচাইতে বেশি
জীবনে কখনও পরিবারকে ছেড়ে থাকা হয়নি। কীভাবে থাকা হবে সবাইকে ছাড়া? মা-বাবাকে ছাড়াতে কীভাবে কাটবে জীবন? ইত্যাদি শঙ্কা সব মেয়েকেই কমবেশি ঘিরে ধরে বিয়ের প্রথম রাতে।

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook

Instagram

You Tube

"At the end of Love there is Pure Love"

Pure Love © 2020 | Privacy Policy