20/09/2018

সহজেই দূর হবে দারিদ্র ও পাপ, থামবে ঝগড়া। জানুন চাণক্য নীতি

প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে বলে যাওয়া এই সব কথা আজকের দিনের মানুষেরও পথ চলার পাথেয় হয়ে রয়েছে।


তাঁর ‘অর্থশাস্ত্র’ ও ‘চাণক্য নীতি’ গ্রন্থ দু’টি আজকের সামাজিক ও আর্থিক জীবনেও গুরুত্বপূর্ণ। ফাইল চিত্র।

প্রাচীন ভারতের ইতিহাসে চাণক্যের নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা। সেই কবে চতুর্থ খ্রিস্ট পূর্বাব্দে এই দার্শনিক, অর্থনীতিবিদ, শিক্ষক ও রাজ পরামর্শদাতা তাঁর অমূল্য পরামর্শ দিয়ে গিয়েছিলেন। পাশাপাশি লিখে গিয়েছিলেন বই। তাঁর ‘অর্থশাস্ত্র’ ও ‘চাণক্য নীতি’ গ্রন্থ দু’টি আজকের সামাজিক ও আর্থিক জীবনেও গুরুত্বপূর্ণ।

কেমন করে দারিদ্র দূর করা যায় বা কলহ-বিবাদ থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখা যায় অথবা ভয় থেকে মুক্তি পাওয়া যায়— সে ব্যাপারে চাণক্যর পরামর্শ আজও একই রকম প্রাসঙ্গিক। যা তাঁর বইতেই লিপিবদ্ধ আছে।

কলহ বা ঝগড়া থেকে দূরে থাকতে মৌ থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চাণক্য। তাঁর মতে, চুপ করে থাকলে ঝগড়া এগোতে পারে না। তাছাড়া আপনি চুপ করে থাকলে, অপর পক্ষ বুঝে উঠতে পারে না আপনি ঠিক কী ভাবছেন। তাই ঝগড়ার সময়ে নিশ্চুপ থেকে নিজের কাজ করে যাওয়াই উচিত।

চাণক্য বলেছেন, ভয় দূর করতে হলে নিজেকে সব সময় সতর্ক থাকতে হবে। আপনি যদি সারাক্ষণ সতর্ক থাকেন, তাহলে আর ভয় আপনার মনে প্রবেশ করতে পারবে না।

দারিদ্র দূর করার জন্য চাণক্যর উপদেশ হল, বিদ্যালাভ করা। বিদ্যালাভ করলে সুখপ্রাপ্তি হয়। পাশাপাশি বিদ্যার্জনের ফলে উপার্জনের যোগ্যতা তৈরি হয়। এর ফলে দারিদ্র দূর হয়।

পাশাপাশি চাণক্য নিয়মিত মন্ত্র উচ্চারণের মাধ্যমে পূজাপাঠেরও উপদেশ দিয়েছেন। তাঁর মতে, এতে মন নির্মল হয়। পাপের থেকে দূরে থাকা যায়।
প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে বলে যাওয়া এই সব কথা আজকের দিনের মানুষেরও পথ চলার পাথেয় হয়ে রয়েছে।

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook

Instagram

You Tube

"At the end of Love there is Pure Love"

Pure Love © 2020 | Privacy Policy